1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লক্ষিপাশা কমিউনিটি ক্লিনিকের হালচাল,সীমাহীন অনিয়ম ও দূর্নীতি,মানুষের ভোগান্তি চরমে! সিএইচসিপি দেলোয়ার হোসেন এর অনিয়ম-দূর্নীতির বিরুদ্ধে আসছে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন(পর্ব-০১) টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ টস জিতে ব্যাটিংয়ে স্কটল্যান্ড সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় কঠোর ব্যবস্থার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সয়াবিন তেলের দাম লিটারে বাড়ল ৭ টাকা ভয় নেই, আ’লীগ আছে রাজপথে: কাদের ফখরুল ইসলাম শাইস্তা’কে আওয়ামিলীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করায় অভিনন্দন সাম্প্রদায়িক অস্থিতিশীলতাকারী দোষীদের শাস্তি দাবীতে ছাত্র অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল কলেজছাত্রকে তুলে নিয়ে বিয়ে করলেন তরুণী বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শুরু

আরও সহজ জয়ে ঢাকাতেই সিরিজ বাংলাদেশের

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২১

প্রথম ম্যাচের চেয়ে ২৬ রান বেশি করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু বাংলাদেশ জয়টা তুলে নিয়েছে আরও সহজে। প্রথম ম্যাচে ১২৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জয় পেতে খেলতে হয়েছিল ৩৩.৫ ওভার। আজ দ্বিতীয় ম্যাচে ১৪৯ রানের লক্ষ্যটা ছুয়েছে ফেলেছে ৩৩.২ ওভারে। মানে আজ দুটি বল কম খেলেই মিলেছে জয়। জয়ের ব্যবধানটাও বড়। প্রথম ম্যাচের ৬ উইকেটের জয়ের বিপরীতে দ্বিতীয় ম্যাচের জয়টা ৭ উইকেটে।

দারুণ এই জয়ে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটা জিতে নিল বাংলাদেশ। ফলে সিরিজ জয়ের আনন্দ নিয়েই তৃতীয় ম্যাচটি খেলতে চট্টগ্রামে উড়াল দিবে তামিমের দল। চট্টগ্রামে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেটি হবে ২৫ জানুয়ারি।

আজও জয়ের রাস্তাটা তৈরি করেছিলেন বোলাররা। ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব ছিল শুধু আনুষ্ঠানিকতা সারার। সেই আনুষ্ঠানিকতা সেরে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিতে অধিনায়ক তামিম ইকবাল তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের ৪৮তম হাফসেঞ্চুরি। রেমন রেইফারের বলে আউট হওয়ার আগে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক আউট হয়েছেন কাটায় কাটায় ৫০ রানে। সাকিব আল হাসানও হাফসেঞ্চুরির দিকেই যাচ্ছিলেন। কিন্তু আফসোস, তিনি হাফসেঞ্চুরি থেকে ৯ রান দূরে থাকতেই দল জয় ধরে ফেলেছে। ফলে ৪১ রানে অপরাজিত থেকেই ফিরতে হয়েছে সাকিবকে!

১৪৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় লিটন দাস ও তামিমের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৩০ রান। ২৪ বলে ২২ রান করে লিটন দাসের বিদায়ের মধ্যদিয়ে ভাঙে বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি। এরপর নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ৪৭ রানের জুটি গড়েন তামিম। এই জুটি ভাঙে মাত্র ১৭ রান করে নাজমুলের বিদায়ে। এরপর তামিমের সঙ্গে যোগ দেন সাকিব আল হাসান। এই জুটিতে ৩২ রান আসতেই হাফসেঞ্চুরি ছুঁয়ে ফেলেন তামিম। এরপর আউটও হয়ে যান অধিনায়ক।

পরে মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে জয়ের বাকি কাজটুকু সেরেছেন সাকিব। মুশফিক করেছেন অপরাজিত ৯ রান। ক্যারিবীয়দের পক্ষে একটি করে উইকেট নেন আকিল হোসেন, অধিনায়ক জেসন মোহাম্মেদ ও রেমন রেইফার।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৪৮ রানেই বেঁধে ফেলেন বাংলাদেশের বোলাররা। ক্যারিবীয়দের গুড়িয়ে দিতে এ দিন বল হাতে সবচেয়ে বড় ভূমিকাটা রেখেছেন স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। তিনি ২৫ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। এছাড়া সাকিব ও মোস্তাফিজ নেন ২টি করে উইকেট। একটি উইকেট নেন হাসান মাহমুদ। অন্যটি রানআউট। বাংলাদেশ দলের আরেক বোলার রুবেল হোসেনকে এ ম্যাচেও থাকতে হয়েছে উইকেটশূন্য।

মেহেদী, সাকিব, মোস্তাফিজদের তোপের মুখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এক পর্যায়ে মাত্র ৪১ রানেই হারিয়ে ফেলে ৫ উইকেট। ক্যারিবীয়রা ১০০’র নিচে গুড়িয়ে যাবে বলেই মনে হচ্ছিল তখন। কিন্তু সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে উইন্ডিজকে ১৪৮-তে পৌঁছে দিতে বড় ভূমিকা রাখেন ৮ নম্বরে ব্যাট করতে নামা রোভমান পাওয়েল। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪১ রান করেছেন তিনি। শেষ দুই উইকেটে মানে নবম ও দশম উইকেটে আলজারি জোসেফ ও আকিল হোসেনকে নিয়ে ৩২ ও ২৮ রানের জুটি গড়েই মূলত তিনি দলকে দেড়শ’র দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যান।

পাওয়েলের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৪ রান করেছেন এই ম্যাচেই অভিষেক হওয়া কিজর্ন ওটলি। এছাড়া এনক্রুমাহ বোনের ২০, আলজারি জোসেফ ১৭, আকিল হোসেন অপরাজিত ১২ ও অধিনায়ক জেসন মোহাম্মেদ করেছেন ১১ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ১৪৮ (সুনিল অ্যামব্রিস ৬, কিজর্ন ওটলি ২৪, জশুয়া ডি সিলভা ৫, আন্দ্রে ম্যাককার্থি ৩, জেসন মোহাম্মেদ ১১, কাইল মেয়ার্স ০, এনক্রুমাহ বোনের ২০, রোভমান পাওয়েল ৪১, রেমন রেইফার ২, আলজারি জোসেফ ১৭, আকিল হোসেন ১২*; মোস্তাফিজ ১৫/২, রুবেল ২৩/০, হাসান ৫৪/১, মেহেদী হাসান মিরাজ ২৫/৪, সাকিব ৩০/২)।

বাংলাদেশ : ৩৩.২ ওভারে ১৪৯/৩ (লিটন দাস ২২, তামিম ইকবাল ৫০, নাজমুল হোসেন শান্ত ১৭, সাকিব ৪১, মুশফিক ৯; রেইফার ১৮/১, জেসন মোহাম্মেদ ২৯/১, আকিল হোসেন ৪৫/১)।

ফল : বাংলাদেশ ৭ উইকেটে জয়ী

সিরিজ : ২-০তে এগিয়ে বাংলাদেশ (জয়)

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : মেহেদী হাসান মিরাজ (বাংলাদেশ)

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি