1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  3. sayefrahman7@gmail.com : Sayef Rahman : Sayef Rahman
বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন

ইউক্রেনকে জাহাজ-বিধ্বংসী ক্ষেপণান্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২০ মে, ২০২২

রাশিয়ার নৌ-অবরোধ প্রতিহত করতে ইউক্রেনের যোদ্ধাদের জাহাজ-বিধ্বংসী ক্ষেপণান্ত্র দেওয়ার জন্য কাজ করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। চলমান পরিস্থিতে দেশটিকে দেওয়া এসব শক্তিশালী অস্ত্র রুশ জাহাজকে ডুবিয়ে দিলে সংঘর্ষ আরও তীব্র হতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করা হচ্ছে। খবর রয়টার্স।


যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে নিজেদের থাকা আর্টিলারি, জ্যাভলিন, স্টিংগার মিসাইল ও অন্যান্য অস্ত্রের বাহিরে আরও উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন অস্ত্র চাওয়ার বিষয়টি গোপন রাখেনি ইউক্রেন। এই তালিকায় এমন ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে যা রুশ নৌবাহিনীকে কৃষ্ণ সাগর বন্দর থেকে দূরে ঠেলে দিতে পারে কিয়েভ। যাতে করে বন্দর দিয়ে পুনরায় শস্য ও অন্যান্য কৃষিপণ্য রফতানি করতে পারে দেশটি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ও সাবেক কর্মকর্তা এবং কংগ্রেসদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, ইউক্রেনে দূরপাল্লার ও শক্তিশালী অস্ত্র পাঠানোর ক্ষেত্রে নানা সমস্যা রয়েছে। এক্ষেত্রে দীর্ঘ প্রশিক্ষণের প্রয়োজনীয়তা, সরঞ্জাম রক্ষণাবেক্ষণের অসুবিধা অথবা মার্কিন অস্ত্রগুলো রাশিয়ার সেনাবাহিনী দ্বারা দখল করার ভয়ও রয়েছে।


তিনজন মার্কিন কর্মকর্তা ও দুই কংগ্রেসের সদস্যদের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, এসব অস্ত্রের মধ্যে বোয়িং’র (বিএ.এন) তৈরি দুই ধরনের শক্তিশালী জাহাজ-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ‘হারপুন’ এবং কংসবার্গ (কেওজি.ওএল) ও রেথিয়ন টেকনোলজিস’র (আরটিএক্স.এন) তৈরি জাহাজ-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সরাসরি বা ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে ইউরোপের এমন কোনো মিত্র দেশের মাধ্যমে এসব অস্ত্র ইউক্রেনে পাঠানো হবে।

এর আগে, গত এপ্রিলে পর্তুগালের কাছে ইউক্রেনীয় সামরিক বাহিনীকে ‘হারপুন’ সরবরাহ করার জন্য আবেদন করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি ৩০০ কিলোমিটার দূরে আঘাত হানতে পারে।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি