1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ন

ইসরাইল যাচ্ছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৫ মে, ২০২২

চলতি সপ্তাহে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসোগলু ইসরাইল সফরে যাচ্ছেন। ১৫ বছরের মধ্যে এই প্রথম তুরস্কের কোনো পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ইসরাইল সফর। দ্বি-পক্ষীয় উত্তেজনার মধ্যে সম্প্রতি সম্পর্ক উষ্ণ করতে এই সফর বলে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।


তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে থাকতে পারেন জ্বালানিমন্ত্রী ফতিহ ডোনমেজ। বুধবার (২৫ মে) ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এর আগে, তিনি আলোচনা করবেন ফিলিস্তিনি কর্মকর্তাদের সঙ্গে।

এদিকে, দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আলোচনায় জ্বালানি সহযোগিতার বিষয়টি থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইসরাইলের প্রাকৃতিক গ্যাস ইউরোপে পৌঁছে দিতে দুই দেশের অংশীদারিত্বের বিষয়ে সম্মত আঙ্কারা।


পাশাপাশি, আলোচনায় আরও বেশ কিছু ইস্যু স্থান পেতে পারে। বিশেষ করে রাষ্ট্রদূত পর্যায়ে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় চালু করার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হতে পারে। ২০১৮ সালে জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্রের ইসরাইলি দূতাবাস চালুর বিরোধিতায় বিক্ষোভে ৬০ ফিলিস্তিনির মৃত্যু হলে ইসরাইলের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে তুরস্ক।

এ ঘটনার পর থেকে ইসরাইল ও তুরস্কের সম্পর্কে অবনতি ঘটে। এমনিতেই ২০০০ দশকের শেষ দিকে আঙ্কারা ও তেল আবিবের সম্পর্কে জটিলতা বিরাজ করছিল। বিশেষ করে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলের অবৈধ বসতি স্থাপনের বিরোধিতায় তুরস্ক সোচ্চার ছিল। একই সময়ে গাজার নিয়ন্ত্রক হামাসকে তুরস্কের সহযোগিতা নিয়ে ক্ষুব্ধ ছিল ইসরাইল।


আঞ্চলিক কয়েকটি ইস্যুতেও দুই দেশের পরস্পরবিরোধী অবস্থান ছিল। যেমন: ২০১৩ সালে মিসরে অভ্যুত্থান এবং ২০১৫ সালের ইরানের পারমাণবিক চুক্তি, ২০১৯ সালে সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার এবং সিরীয় ভূখণ্ডে তুরস্কের সামরিক অভিযান।

তবে, এই বছর দেশ দুটি তিক্ততা ভুলে সম্পর্ক উষ্ণ করার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। মার্চ মাসে ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট ইজাক হারজগ তুরস্কের রাজধানীতে ঐতিহাসিক সফর করেন। ২০০৭ সালের পর এটি ছিল প্রথম কোনো ইসরাইলি প্রেসিডেন্টের তুরস্ক সফর। ওই সময় তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান ও হারজগ বলেছিলেন, তারা সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চান। এরদোগান দুই দেশের জ্বালানি সহযোগিতাকে এগিয়ে নেওয়ার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছিলেন।


এরপর থেকে ইসরাইল ও তুরস্কের নেতাদের মধ্যে ফোনালাপ শুরু হয়। যদিও প্রকাশ্যে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলি পদক্ষেপের নিন্দা জানানো অব্যাহত রেখেছেন এরদোগান।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি