1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

কলকাতার হারে বোলিংয়ে উজ্জ্বল ব্যাটিংয়ে নিস্প্রভ সাকিব

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক

সাকিবের কিপ্টে বোলিংয়ের পর আন্দ্রে রাসেলের পাঁচ উইকেটে মাত্র ১৫২ রানে গুটিয়ে যায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। আর ১৫৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। শেষ ১২ বলে ১৯ রান দরকার যখন তখনও উইকেটে আন্দ্রে রাসেল ও দীনেশ কার্তিক। তবুও শেষ পর্যন্ত ১০ রানে হেরে বসল সাকিব আল হাসানের কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই নিয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে শেষ ১২ বারের দেখায় ১১ বারই হারল কলকাতা।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া ইয়ন মরগ্যানের দল মুম্বাইকে ১৫২ রানে থামিয়ে দেয়। সাকিবের ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে সূর্যকুমার যাদবের উইকেট নেওয়ার পর আর বেশি বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি মুম্বাই। আর শেষ দিকে তো আন্দ্রে রাসেলের দুই ওভারে ১৫ রানের বিনিময়ে পাঁচ উইকেট তুলে নেওয়ায় মুম্বাই থামে ১৫২ রানে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে কলকাতার দুই শুভমান গিল এবং নিতিশ রানার ব্যাটে ৮ ওভানে বিনা উইকেটে স্কোরবোর্ডে ৬২ রান যোগ করে কেকেআর। ৯ম ওভারে দলীয় ৭২ রানে রাহুল চাহারের বলে আউট হন গিল। এরপর দলীয় ৮১ রানে সেই চাহারের বলেই মাত্র ৫ রানে করে ফেরেন রাহুল। মরগানকে সঙ্গে নিয়ে ১৩ ওভারেই দলকে ১০০ রানের পুঁজি এনে দেন রানা।

উইকেটের এক প্রান্তে দুর্দান্ত খেলতে থাকা রানা তুলে নেন অর্ধশতক। তবে এরপরই অধিনায়ক মরগ্যান মাত্র ৭ রানে ফেরেন। আর তার কিছুক্ষণ পর ৫৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে স্ট্যাম্পিং হয়ে ফেরেন রানাও। তাতেও জয়ের পথেই ছিল কেকেআর। কেননা ওই সময় ৩০ বলে তাদে দরকার ছিল মাত্র ৩১ রান। আর উইকেটে ছিলেন সাকিব আল হাসান, দীনেশ কার্তিক আর আন্দ্রে রাসেলের মতো অভিজ্ঞ ম্যাচ উইনাররা। কিন্তু দ্রুত রান তুলতে গিয়ে ক্রুনাল পান্ডিয়াকে ডিপ স্কয়ারে স্লগ সুইপ করতে গিয়ে সুর্যকুমারের তালুবন্দি হন সাকিব। ক্রিজে নেমে দুই বার জীবন পেয়েও সুবিধা করতে পারেননি রাসেল।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ১৫ রান প্রয়োজন হলে ট্রেন্ট বোল্টকে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই অলরাউন্ডার। পরের বলে প্যাট কামিন্সকে বোল্ডকে মুম্বাইকে জয়ের একদম কাছে নিয়ে যান এই পেসার। শেষ পর্যন্ত আর কোন উইকেট না পরলেও পরের দুই বলে মাত্র ২ রান নিতে সক্ষম হয় কলকাতা। অপরপ্রান্তে অপরাজিত থেকে যান দীনেশ কার্তিক। আর তাতেই ১০ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় কলকাতাকে।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি