1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৭ অপরাহ্ন

জকিগঞ্জে গোয়াল ঘরে আগুন ও গাছ কর্তন : ৪ টি গরু চুরি

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

স্টাফ রিপোর্ট::

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার বারঠাকুরী গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গোয়াল ঘরে আগুন দিয়েছে প্রতিপক্ষ। এ সময় ৪ টি গরু চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়। রোববার ভোর ৪ টায় বারঠাকুরী গ্রামের আব্দুস ছালাম’র বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন বারঠাকুরী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার সিরাজুল ইসলাম। তিনি আরো জানান, পূর্ব শত্রতার জের ধরে এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারনা করছেন।


সূত্র জানায়, গত ১০ অক্টোবর জকিগঞ্জ উপজেলার বারঠাকুরী গ্রামের মৃত আব্দুস শুকুরের ছেলে বাবলু আহমদ, মৃত মজু মিয়ার ছেলে বাবুল আহমদ, বাবুল আহমদ‘র ছেলে ফয়ছল আহমদ, খাসিরচক গ্রামের মৃত মফুর আলীর ছেলে সাবু, সাবু আহমেদের ছেলে রামেল, মৃত কামাল উদ্দিনের ছেলে রুবেল আহমদ, জলাল উদ্দিনের ছেলে মারজানসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন মিলে মৃত আব্দুছ সবুরের বাড়িতে হামলা চালান।

এ হামলায় আব্দুস সবুরের স্ত্রী জাহানারা বেগম, ছেলে সালাম, সালামের স্ত্রী নাসরিন বেগম,আব্দুস শহিদ ও আবুল কালামকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করেন। আহতরা সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এ ঘটনায় আব্দুস ছালাম বাদী হয়ে জকিগঞ্জ থানায় ( মামলা নং ০৭(১০)২০ ইং) দাখিল করেন। ওই মামলার জের ধরে এবং মামলা উঠিয়ে নেয়ার জন্য রোববার ভোর ৪ টায় বারঠাকুরী গ্রামের আব্দুস ছালাম বাড়িতে বাবুল’র ছেলে আফজল হোসেন’র নেতৃত্বে বাবলু, রুবেল, বেবুল, ফয়ছল, শহিদসহ আরো ৭ জন মিলে গোয়ালঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ৪টি গরু নিয়ে যায়।

যাওয়ার সময় বাড়িতে থাকা নানা প্রজাতির প্রায় ৫০টি গাছ কেটে যায়। আগুন দেখে স্থানীয়রা এসে পরবর্তীতে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় জকিগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন আব্দুস ছালাম।


বারঠাকুরী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার সিরাজুল ইসলাম জানান, পূর্ব শত্রতার জের ধরে এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। আর এ বিষয়টি তিনি ইউপি চেয়ারম্যানকে অবগত করেছেন।


বারঠাকুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহসিন মর্তুজা টিপু জানান, আব্দুস ছালাম ও বাবলু মিয়াদের সাথে পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে মামলাও হয়েছে। তবে আগুনের বিষয়টি তিনি অবগত নন।


জকিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর আব্দুন নাসেরের নাম্বারের যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। তবে জকিগঞ্জ থানার এসআই মো. জহিরুল ইসলাম জানান, আব্দুস সালামের দাখিলকৃত মামলাটি তদন্তাধীন। আর আগুন লাগানো ও গরু চুরির বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি