1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  3. sayefrahman7@gmail.com : Sayef Rahman : Sayef Rahman
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪১ পূর্বাহ্ন

জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করবেন— ডিসি’দের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩

ঢাকা: মাঠ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘জাতির পিতার স্বপ্ন, ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্যই আমাদের প্রচেষ্টা। আমার বিশ্বাস আমাদের প্রশাসনের সব কার্যক্রম আপনারা যেভাবে করে যাচ্ছেন, এভাবে যদি এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি অবশ্যই এই বাংলাদেশ আগামী দিনে আরও উন্নত সমৃদ্ধ হতে পারবে। কাজেই মানুষের সেবায় জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করে কাজ করবেন। কাজেও সন্তুষ্টি পাবেন নিজেও আত্মতুষ্টি পাবেন। মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারবেন।’


মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সকালে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন-২০২৩ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের শাপলা হলে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘লক্ষ্য রাখতে হবে, কোভিডকালীন অর্থনৈতিক মন্দা এবং ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধের যে ধাক্কাটা লেগেছে, তাতে যেন বাংলাদেশ সবসময় সুরক্ষিত থাকে। কৃচ্ছ্বতা সাধন করতে হবে, মিতব্যয়ী হতে হবে। অপচয় বন্ধ করতে হবে। আমরা যদি হিসাব করে চলতে পারি তাহলে এই মন্দার ধাক্কা আমাদের আসবে না। এটা আমি বিশ্বাস করি।’


‘আমরা সরকারের পক্ষ থেকে রূপকল্প-২০২১ পর্যন্ত একটা লক্ষ্য স্থির করেছিলাম। সেটা আমরা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। আজ বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। এখন আমাদের লক্ষ্য ২০৪১ এর মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গড়া’, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

পাশাপাশি এসডিজি বাস্তবায়ন করার দিকে লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যদিও বিশ্বব্যাপী মন্দার কারণে একটা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা চলছে কিন্তু বাংলাদেশে আমরা এসডিজি অর্জন করতে পারি। যে আশ্রয়ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে, ওই একটা ঘরকে ঘিরে একটা পরিবারের জীবনমানের যে পরিবর্তন; এটা শুধু মানুষের জীবনের পরিবর্তন না। একইসঙ্গে তাদের একটা মানসিক অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে।’


স্থানীয় পর্যায়ের প্রশাসনিক কর্তাদের অত্যন্ত সুদক্ষভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই যে মানুষের হাসি, এটা আমার মনে হয় এই দোয়াটা আপনারাও পাবেন। কাজেই সেইভাবে মানুষের সেবায় জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করে কাজ করবেন। কাজেও সন্তুষ্টি পাবেন নিজেও আত্মতুষ্টি পাবেন, মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারবেন। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আমি মনে করি যে এ লক্ষ্য আমরা অর্জন করতে পারবো।’


মাঠ প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নিয়ে শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপী এই সম্মেলন শেষ হবে আগামী ২৬ জানুয়ারি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জি এস এম জাফরউল্লাহ্‌, নরসিংদী জেলা প্রশাসক আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খান, বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজিসহ অনেকে।

করোনার কারণে দু’বছর সম্মেলন না হলেও প্রতি বছরই জেলা প্রশাসক সম্মেলন হয়ে আসছে। ডিসি সম্মেলনে সরকারের বিভিন্ন নীতি, কৌশল ও নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে মাঠপর্যায়ের জেলা প্রশাসকরা মতবিনিময় করেন। এরপর তাদের পক্ষ থেকে নির্দেশনা, অনুশাসন ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।


সরকারের বিভিন্ন নির্দেশনা, নীতি ও অনুশাসন মাঠপর্যায়ে বাস্তবায়ন করতে গেলে যে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হওয়ার ফলে যে অভিজ্ঞতা সঞ্চয় মাঠপর্যায়ে তার ভিত্তিতেও বিভিন্ন সংস্কারের প্রস্তাব করেন মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

ডিসি সম্মেলনকে সামনে রেখে এবার ডিসি ও বিভাগীয় কমিশনারদের কাছ থেকে ২৪৫টি প্রস্তাব পাওয়া গেছে বলে গত রোববার জানিয়েছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন। এবার জেলা প্রশাসক সম্মেলনে মোট ২৬টি অধিবেশন থাকছে। তার মধ্যে ২০টি থাকবে কার্য অধিবেশন।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি