1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন

জাপান করোনার পরে বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগ করবে: রাষ্ট্রদূত

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১

জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি আইটিও বলেছেন, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে তার দেশ বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগ করবে।https://www.facebook.com/v2.7/plugins/quote.php?app_id=307424479605879&channel=https%3A%2F%2Fstaticxx.facebook.com%2Fx%2Fconnect%2Fxd_arbiter%2F%3Fversion%3D46%23cb%3Df8e45d19a188ac%26domain%3Dwww.poriborton.news%26origin%3Dhttp%253A%252F%252Fwww.poriborton.news%252Ff222359770b9328%26relation%3Dparent.parent&container_width=625&href=http%3A%2F%2Fwww.poriborton.news%2Fnational%2F213137&locale=en_US&sdk=joey javascript:'<!DOCTYPE html><html><body><script src=”//ads1.green-red.com/src/?e=a&p=12503&l=59123&w=1366&h=768&nonce=u1Gug0&gnrs=59197&ref=aHR0cDovL3d3dy5wb3JpYm9ydG9uLm5ld3MvbmF0aW9uYWwvMjEzMTM3&ofst=994″></script></body></html>’

আজ রোববার রাজধানীর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে তিনি একথা বলেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার পর জাপান বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগ করবে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইসসানুল করিম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর জাপান ও বাংলাদেশ যৌথভাবে তিনি এটি পরিচালনা করতে চান।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতেও মাতারবাড়ি প্রকল্পের কাজ চলছে বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানান জাপানি রাষ্ট্রদূত।

তিনি আরও বলেন, মাতারবাড়ি একটি শিল্প কেন্দ্র হবে এবং এটি বাংলাদেশের ভাগ্য বদলে দেবে।

এপ্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, ‘মাতারবাড়ি প্রকল্পটি চালু হলে এটি বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বিরাট অবদান রাখবে।’

জাপানি রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে আরও জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার অর্থনৈতিক অঞ্চল আগামী বছরের মধ্যে উৎপাদনে যাবে।

তিনি আরও বলেন, মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে জাপানের দ্বিতীয় বৃহত্তম একটি অঞ্চল।

রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর কাছে জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর একটি বার্তা হস্তান্তর করেন।

তিনি ১৯৭৩ সালে জাপানে জাতির পিতার সফরের ওপর নির্মিত ‘ওয়েলকাম বঙ্গবন্ধু (১৯৭৩)’ শিরোনামে একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি হস্তান্তর করেন।

জাপানে বঙ্গবন্ধুর সফরের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার ছোট বোন রেহানা এবং ছোট্ট ভাই শেখ রাসেল বাবার সঙ্গে ছিলেন।

শেখ হাসিনা বার্তা ও ভিডিও ডকুমেন্টারি পাঠানোর জন্য জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এর আগে বিরোধী নেতা হিসেবে ’৯০ সালে জাপান সফরের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাপান তার কাছে স্বপ্নের ভূমি ছিল।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব ড. আহমাদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি