1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন

নিশ্চিত হয়ে গেলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ১৬টি দল

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৭ জুলাই, ২০২২

১৫ জুলাই বৈশ্বিক বাছাইপর্বের ফাইনালে জায়গা করে নেওয়ার মধ্য দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিল জিম্বাবুয়ে এবং নেদারল্যান্ডস। এরই মধ্য দিয়ে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ১৬ দল নিশ্চিত হয়েছে।
কীভাবে দলগুলো অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিল এবং কোন ১৬ দল লড়াই করবে বিশ্বকাপের শিরোপার জন্য ।

২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি মূলত ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে অনাকাঙ্ক্ষিত করোনাভাইরাসের কারণে বাধ্য হয়ে পিছিয়ে নিতে হয়েছে বৈশ্বিক এই ক্রিকেট টুর্নামেন্টটি। এর আগে ২০২১ সালের বিশ্বকাপ ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা থেকে ক্রিকেটারদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য দুবাইতে হয় সর্বশেষ টুর্নামেন্ট।

যে টুর্নামেন্ট থেকে নিশ্চিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের মূল পর্বের আট দল। অবশ্য কেবল দুবাই বিশ্বকাপ নয়, এর জন্য নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে দলগুলোর অবস্থানও মাপকাঠি হিসেবে ছিল।

২০২১ সালের ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট দল সরাসরি অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল। এই আট দল হলো স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা।

এই আট দল ছাড়া সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলা শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নামিবিয়া এবং স্কটল্যান্ড জায়গা করে নিয়েছে এবারের আসরের গ্রুপ স্টেজের জন্য। যাদের সঙ্গে পরবর্তীতে বৈশ্বিক বাছাইপর্ব পেরিয়ে যুক্ত হয়েছে আরও ৪ দল।

যেখানে বৈশ্বিক বাছাইপর্ব ‘এ’ থেকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে আয়ারল্যান্ড এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ ছাড়া বৈশ্বিক বাছাইপর্ব ‘বি’ থেকে আসন্ন বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে এবং নেদারল্যান্ডস। বিশ্বকাপে জায়গা করে নেওয়ার পথে বাছাইপর্ব থেকে ওমান, পাপুয়া নিউগিনি, নেপাল, সিঙ্গাপুর, জার্সি এবং যুক্তরাষ্ট্রের মতো দলগুলোকে পেছনে ফেলে এসেছে দলগুলো।

এদিকে জিম্বাবুয়ে এবারের বিশ্বকাপে জায়গা করে নেওয়ার মাধ্যমে দীর্ঘ ৭ বছরের অপেক্ষা কাটিয়ে আবার বৈশ্বিক কোনো শিরোপার লড়াইয়ের মঞ্চে ফিরে এলো। এর আগে ২০১৫ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলেছিল আফ্রিকার এই দেশটি। এরপর ২০১৯ বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় তারা। পরবর্তীতে বোর্ড এবং সরকারের মধ্যকার ঝামেলায় ক্রিকেট থেকেও নির্বাসিত হয় জিম্বাবুইয়ানরা।

এদিকে বাছাইপর্ব থেকে আসা দুটি করে দল গ্রুপ স্টেজে অন্য দলগুলোর সঙ্গে যুক্ত হবে। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের মূল পর্বের আগে গ্রুপ স্টেজের খেলা হবে। যেখানে গ্রুপ ‘এ’ তে নামিবিয়া, শ্রীলঙ্কা, সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে জায়গা করে নেবে জিম্বাবুয়ে এবং নেদারল্যান্ডসের মধ্যকার ফাইনালে পরাজিত দল।

অপরদিকে গ্রুপ ‘বি’ তে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আয়ারল্যাড, স্কটল্যান্ডের সঙ্গে যুক্ত হবে জিম্বাবুয়ে এবং নেদারল্যান্ডসের মধ্যকার জয়ী দল। গ্রুপ স্টেজে প্রতিটি দল নির্দিষ্ট গ্রুপের দলগুলোর সঙ্গে একে অপরের সঙ্গে এক ম্যাচ করে মুখোমুখি হবে। সেখান থেকে প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল জায়গা করে নেবে মূল পর্বের সুপার টুয়েলভে।

যেখানে ছয়টি দলকে নিয়ে আলাদা করে দুটি গ্রুপ করা হবে। ইতোমধ্যে এক গ্রুপে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে রয়েছে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ এবং ইংল্যান্ড। যাদের সঙ্গে পরবর্তীতে আরও দুটি দল যুক্ত হবে। অন্য গ্রুপে ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যুক্ত হবে অন্য দুই দল।

১৬ অক্টোবর শ্রীলঙ্কা এবং নামিবিয়ার ম্যাচের মধ্য দিয়ে গ্রুপ স্টেজের খেলা শুরু হবে। একই সঙ্গে বেজে উঠবে অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দামামা। এরপর ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হবে সুপার টুয়েলভের মূল পর্বের খেলা।

সবমিলিয়ে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের খেলা। ১৩ নভেম্বর মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে এই বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের।

যে ১৬ দল খেলবে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নামিবিয়া, স্কটল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং জিম্বাবুয়ে।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি