1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০২:২৫ অপরাহ্ন

বাস-ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী, ভোগান্তি চরমে

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার ১৮ দফা নির্দেশনা জারি করার পর আজ বুধবার থেকে অর্ধেক আসন খালি রেখে গণপরিবহন চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।বাংলাদেশ রেলওয়ে ট্রেনের ধারণক্ষমতার অর্ধেক টিকিট বিক্রি শুরু করেছে। 

আর এতে ট্রেনের ভাড়া না বাড়লেও নগর পরিবহনের বাসের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।
গণপরিবহনে অর্ধেক আসনে যাত্রী নেয়ার ফলে অফিসগামী যাত্রীদের ভোগান্তি পৌঁছেছে চরমে। এক একটি বাস কোনো স্টপেজে আসলেই শুরু হয় শত মানুষের দৌড়ঝাঁপ।
কোন স্টপেজে দু-একজন যাত্রী নামানোর জন্য বাস দাঁড়ালেই অপেক্ষমান মানুষরা বাসে উঠার চেষ্টা করেন। তীব্র ধাক্কাধাক্কি করে দু-একজন উঠতে পারলেও দীর্ঘ অপেক্ষমান থাকতে দেখা গেছে বেশিরভাগ যাত্রীদের।
দেশে করোনা সংক্রমণ আবার উদ্বেগজনক পর্যায়ে পৌঁছে যাওয়ায় গত সোমবার সব ধরনের জনসমাগম সীমিত করাসহ ১৮ দফা নির্দেশনা জারি করে সরকার।
সেখানে বলা হয়, গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশের বেশি যাত্রী পরিবহন করা যাবে না।
ওই নির্দেশনা পাওয়ার পর সোমবার সন্ধ্যায় বনানীতে বিআরটিএ কার্যালয়ে ভাড়া পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত একটি বৈঠক হয়। সেখানেই আসন খালি রাখা ও ভাড়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয় বলে জানিয়েছেন বিআরটিএ পরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) সরওয়ার আলম। 
তিনি বলেন, মালিক পরিবহন সমিতি সবার সঙ্গে কথা হয়েছে। যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল সেটি সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে। 
গত বছরের প্রসঙ্গ টেনে এই কর্মকর্তা বলেন, এর আগে গত বছরের ১ জুন থেকে যেভাবে গণপরিবহনে যাত্রী বহন করা হয়েছিল, কাল থেকে সেভাবেই চলবে। বাসের অর্ধেক আসন খালি থাকবে, ভাড়া বাড়বে ৬০ শতাংশ। 
কোনো গণপরিবহনে ৫০ শতাংশের অধিক যাত্রী বহন করলে তাদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কাল থেকেই তো কার্যকর হচ্ছে, প্রথম দিকে সচেতনতার জন্য তাদের বলা হয়েছে। পরে বিআরটিএর ম্যাজিস্ট্রেটসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মাঠে থাকবে।  
আপাতত দুই সপ্তাহের জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গত মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আগামীকাল থেকে দেশের সব গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী নেয়া সাপেক্ষে ৬০ পারসেন্ট ভাড়া বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ভাড়া পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসবে।
তিনি বলেন, অর্ধেক আসন খালি রাখার পাশাপাশি গণপরিবহনে সবার মাস্ক পরা এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। গণপরিবহনের মালিক-শ্রমিকদের এ বিষয়ে কঠোর হতে হবে। 
এ পরিস্থিতিতে সবাইকে সরকারের ১৮ দফা নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব অফিস ও কারখানা অর্ধেক জনবল দিয়ে পরিচালনা করুন; উপাসনালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, জনসমাগম সীমিত করুন।  
এদিকে বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার শাহাদাত বলেন, মঙ্গলবার থেকেই ট্রেনের আসন সংখ্যার অর্ধেক ফাঁকা রেখে টিকিট বিক্রি শুরু করেছেন তারা।
তিনি বলেন, আমাদের সব ট্রেনে যে কয়টি আসন আছে, তার অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে। এখন থেকে আর ৫০ শতাংশের বেশি টিকিট বিক্রি করব না। তবে ট্রেনে ভাড়া বাড়ানোর কোনো সিদ্ধান্ত বা আলোচনা হয়নি বলে তিনি জানান। 
কতদিন এমন ব্যবস্থা থাকবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যতদূর জানি যে, প্রথমে দুই সপ্তাহ। পরবর্তী নির্দেশনা আসা পর্যন্ত এ নিয়ম মেনে চলা হবে বলে জানান। 
সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে এর আগে গত বছরের ৩১ মে একই নিয়ম চালু করেছিল বাংলাদেশ রেলওয়ে। তখনো ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হচ্ছিল, তবে ভাড়া বাড়ানো হয়নি। পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলে ১৬ সেপ্টেম্বর আবার সব আসনে যাত্রী বহন শুরু হয় ট্রেনে।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি