1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৯:২৮ অপরাহ্ন

বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সারাদেশে ভাষা শহিদদের স্মরণ

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

রক্তের ঋণ শোধ করা যায় না। তাকে আগলে রাখতে হয় হৃদয়ের সবটুকু ভালোবাসায়, পরম মমতায়। বুকের রক্ত ঠেলে বাংলা ভাষাকে রাঙিয়ে দেওয়া, গৌরবের সর্বোচ্চ চূড়ায় বসানো সেইসব ভাষাশহিদদের বিনম্র শ্রদ্ধা, পরম মমতা ও হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় স্মরণ করছে সারাদেশ তথা সারাবিশ্ব। ফুলে ফুলে ছেঁয়ে গেছে শহিদবেদি। ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট ও লোকাল করেসপন্ডেন্টদের পাঠানো খবর।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে হাজারো মানুষের ঢল নামে।

একুশের প্রথম প্রহরে রবিবার দিনগত রাতে ভাষাশহীদ সালাম, বরকত রফিক, জব্বারদের বিনম্র শ্রদ্ধা জানান প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দসহ বিভিন্ন সংগঠন।

সিলেট রাত ১২টা ১ মিনিট বাজার সঙ্গে সঙ্গেই শহীদ মিনারের বেদিতে শুরু হয় শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন। ভাষাশহীদদের স্মরণে হাজারো জনতা ফুল হাতে লাইনে দাঁড়িয়ে একে একে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বিগত কয়েক বছর ভোরে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হলেও এবার রাতের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদনের আয়োজন করে সিলেট জেলা প্রশাসন।

প্রথমেই শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার। এরপর শ্রদ্ধা জানান সিলেট সিটি কর্পোরেনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, বিভাগীয় কমিশনার, সিলেট, সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি, জেলা প্রশাসন, মহানগর পুলিশ কমিশনার, জেলা পরিষদ, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এদিকে, একুশের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনকে কেন্দ্র করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলে প্রশাসন। নগরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বসানো হয় পর্যাপ্ত সিসি ক্যামেরা। যান চলাচল বন্ধ ছিল নগরের চৌহাট্টা থেকে শহীদ মিনার মুখি জিন্দাবাজার সড়ক পর্যন্ত।

গাজীপুর: যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান একুশে ফেব্রুয়ারি পালিত হচ্ছে। দিবসের প্রথম প্রহরে গাজীপুরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ও নগর মেয়র অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম। এরপর জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, মেট্রোপলিটন পুলিশ, জেলা পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, গাজীপুর প্রেসক্লাব, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

নারায়ণগঞ্জ: গভীর শ্রদ্ধায় বায়ান্নর মহান ভাষাশহীদদের স্মরণ করা হয়েছে। প্রথম প্রহরে শহরের চাষাড়ায় কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ ও পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম। পরে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সর্বস্তরের জনতা শ্রদ্ধা জানান।

খুলনা: শ্রদ্ধা জানাতে শহিদ মিনারে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের ঢল নেমেছে। করোনার কারণে সারাদেশে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকলেও আজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শহিদ মিনারগুলোতে দলে দলে ফুল নিয়ে হাজির হয়েছেন শিক্ষার্থীরা। বাবা-মায়েরা তাদের সন্তানদের সঙ্গে নিয়ে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন ভাষার জন্য জীবনদানকারী বীরদের।
প্রথম প্রহরে খুলনার শহিদ হাদিস পার্কে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, শ্রম প্রতিমন্ত্রী, বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন, আওয়ামী লীগ বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং উন্নয়ন সংগঠনের পক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। এছাড়া খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, কুয়েটে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শেষে সকলের জন্য শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ খুলে দেওয়া হয়। সকালে খুলনা মহানগরীসহ বিভিন্ন উপজেলাতে প্রভাতফেরীও হয়েছে।

বরিশাল: একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। রাত ১২টা ১মিনিটে প্রথমে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিভাগীয় কমিশনার ড. অমিতাভ সরকার। পর্যায়ক্রমে সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ, ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, মেট্রোপুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান, জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার, মহানগর আওয়ামী লীগ, পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন ভাষা শহিদদের প্রতি ফুলের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বরিশাল আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক, জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসের কর্মকর্তা, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, বরিশাল জেলা সিভিল সার্জন, জেলা আনসার কমান্ডার।
এছাড়াও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন, অন্যান্য রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

রংপুর: প্রথম প্রহরে হাজারো মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে রংপুরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার। রাত ১২টা ১মিনিটে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় পুষ্পস্তবক অর্পণ শুরু হয়। বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক নিয়ে দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানান জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান ভাষাশহিদদের।
প্রথমেই ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিভাগীয় কমিশনার, সিটি মেয়র, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি, মেট্রো কমিশনার ও জেলা প্রশাসক আসিব আহসানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এরপর একে একে রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগ, জেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান। করোনার কারণে সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। ভোরে প্রভাত ফেরী ও সারাদিন দিনব্যাপী আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে।

নরসিংদী: যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহিদ দিবস। প্রথম প্রহরে ফুল দিয়ে ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ। শহরের স্টেডিয়াম সংলগ্ন নরসিংদীর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম ও সিভিল সার্জন নুরুল ইসলাম। এর পরপরই জেলা পরিষদ, আওয়ামী লীগ, মুক্তিযুদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয় ভাষার জন্য আত্মত্যাগী বীরদের।
এছাড়াও জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ফুলের শুভেচ্ছা জানান সংশ্লিষ্ট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, নির্বাহী কর্মকর্তাসহ হাজারো জনতা। জেলা প্রশাসন ছাড়াও অন্যান্য বিভাগ, বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের জনতা ফুলের তোড়া দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ভাষাশহিদদের। দিনব্যাপী বিভিন্ন স্কুল-কলেজসহ সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নানান আয়োজনের মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে দিবসটি।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে প্রথম শ্রদ্ধা নিবেদন করেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি। এরপর শ্রদ্ধা জানান মনিরা সুলতানা এমপি, সিটি মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার মো. কামরুল হাসান, রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার হারুন অর রশিদ, জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমানসহ বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন কর্মকর্তা, রাজনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠন নেতৃবৃন্দ। পরে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
প্রতিমন্ত্রী তাঁর পিতা একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষা সৈনিক মরহুম এম শামছুল হকের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

জয়পুরহাট: শহরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রথমে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির। এরপর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ও পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এছাড়াও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জয়পুরহাট প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শহিদদের শ্রদ্ধা জানান।

খাগড়াছড়ি: একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে ভাষাশহিদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছে খাগড়াছড়িবাসী।
জেলা প্রশাসন সংলগ্ন শহিদ মিনারে রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রথম পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রামের মহিলা সাংসদ বাসন্তী চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী, পৌর মেয়র নির্মলেন্দু চৌধুরী, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবদুল আজিজসহ শতাধিক সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।
এছাড়াও সারাদিন আলোচনাসভা, শহিদ স্মরণে দোয়া মাহফিল ও বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করা হবে।

ঝিনাইদহ: যথাযোগ্য মর্যাদায় নানান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ঝিনাইদহে পালিত হচ্ছে জাতীয় শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। প্রথম প্রহরেই শহরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে র‌্যালি যোগে আসতে শুরু করে নানা সংগঠন। জড়ো হয় শহিদ মিনারের পাদদেশে। রাত ১২ টা ১ মিনিটে প্রথমে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে একে একে জেলা পুলিশ, বিচার বিভাগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ শহিদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

সাতক্ষীরা: শ্রদ্ধা, ভালবাসা ও ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য নৌ-কমান্ডো ০০০১ বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ভাষা শহিদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। শ্রদ্ধা নিবেদনকালে দলীয় নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কিশোরগঞ্জ: মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে কিশোরগঞ্জ শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষাশহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন কিশোরগঞ্জ -১ আসনের এমপি ডা. জাকিয়া নুর লিপি ও কিশোরগঞ্জ -৪ আসনের এমপি রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক। রাত ১২টা ১ মিনিটে কিশোরগঞ্জ -১ আসনের এমপি ডা. জাকিয়া নুর লিপি ও কিশোরগঞ্জ -৪ আসনের এমপি রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক, জেলা প্রশাসক মো. শামীম আলম, পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম বার, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড এম এ আফজল, রোভার স্কাউটস, বিএনসিসি, বিভিন্ন সংগঠন শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

শেরপুর: রাতের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে সূচনা হয় ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের। রাত ১২.০১ মিনিটে প্রথম ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের হুইপ ও শেরপুর সদর আসনের সাংসদ আতিউর রহমান আতিক। পরে জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব, পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির রুমান, পৌর মেয়র গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
এছাড়াও পর্যায়ক্রমে জেলা আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি