1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১২:০৭ অপরাহ্ন

ভারতে ‘টিকটক’ হৃদয়সহ ১১ বাংলাদেশির সাজা

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২২ মে, ২০২২

ঢাকা: ভারতের বেঙ্গালুরুতে এক বাংলাদেশি তরুণীকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার ঘটনায় আলোচিত ‘টিকটক’ হৃদয় ওরফে হৃদয় বাবুসহ ১১ বাংলাদেশির সাজা হয়েছে।


মামলায় ৪৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে রায় ঘোষণা করেন বেঙ্গালুরুর অতিরিক্ত ‘সিটি সিভিল অ্যান্ড সেশন’ আদালতের বিচারক এন সুব্রামন্যা।

রায়ে ৭ জনকে যাবজ্জীবন এবং বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।


অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২০ (বি), ২০১, ২০৪, ৩২৩, ৩২৪, ৩৪৩, ৩৬৬ (বি), ৩৭০(এ), ৩৭৬(ডি), ৩৭৬, ৩৮৪, ৫০৪, ৫০৬ ধারা, ইমমরাল ট্রাফিকিং প্রিভেনশন অ্যাক্ট’এর ৪ ও ৫ ধারা, ইনফরমেশন টেকনলজি অ্যাক্টের ৬৭(এ) ধারা এবং ১৪ ফরেনারস অ্যাক্টে মামলা দায়ের করা হয়েছিল।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন চাঁদ মিয়া, মোহাম্মদ রিফাকদুল ইসলাম (হৃদয় বাবু), মোহাম্মদ আলামিন হোসেন, রকিবুল ইসলাম, মোহাম্মদ বাবু শেখ, মোহাম্মদ ডালিম ও আজিম হোসেন।


তানিয়া খান নামের এক নারী আসামির ২০ বছর এবং মোহাম্মদ জামাল নামের একজনের পাঁচবছরের দণ্ড দিয়েছেন বিচারক। আর ফরেনার্স অ্যাক্টের অধীনে নুসরাত ও কাজল নামে দুজনের ৯ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আর খালাস পেয়েছেন একজন।

গত বছরের মে মাসে বেঙ্গালুরুতে ২২ বছরের এক বাংলাদেশি তরুণীকে বিবস্ত্র করে শারীরিক নির্যাতনের পর দল বেঁধে ধর্ষণ করা হয়। কয়েক দিন বাদে নির্যাতনের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।


ওই ঘটনায় ঢাকার হাতিরঝিল থানায় মানবপাচার ও পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেন নির্যাতনের শিকার মেয়েটির বাবা।

মামলার পর ওই তরুণের পরিচয় টিকটক হৃদয় বলে শনাক্ত করে পুলিশ। সে মগবাজারের বাসিন্দা ছিল।


এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (পূর্ব) ভীমশঙ্কর গুলেড়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, ডিএনএ অ্যানালাইসিস, ইলেক্ট্রনিক প্রমাণ, মোবাইল ফরেনসিক,ফিঙ্গার প্রিন্টসহ প্রয়োজনীয় দলিলাদি আদালতে দাখিল করা হয়েছিল। এই কারণে তাদের বিচার দ্রুত হয়েছে।

তদন্ত প্রতিবেদনের বরাতে টাইমস অব ইন্ডিয়া লিখেছে, অভিযুক্তরা মানব পাচারকারীরা এবং তারা অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করে। চাকরি দেওয়ার কথা বলে তারা মেয়েদের ভারতে এনে যৌন ব্যবসায় ব্যবসায় বাধ্য করত। নির্যাতনের শিকার মেয়েটিও তেমনই এক ভুক্তভোগী। মতপার্থক্যের কারণে ‘শিক্ষা’ দিতে ওই তরুণীর ওপর বীভৎস নির্যাতন চালানো হয়। আলোচিত এ ঘটনায় পুলিশ আসামিদের বিরুদ্ধে ১০১৯ পৃষ্ঠার চার্জশিট দেয়।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি