1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩০ অপরাহ্ন

মাউশির ২০৫১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২

ঢাকা: মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের আওতায় নতুন ২০৫১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (৬ জুলাই) চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর, শেখ জামাল ডরমেটরি ও রোজী জামাল ডরমেটরি’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এই ঘোষণা দেন।


প্রধানমন্ত্রী সকালে তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সর্বপ্রথম স্থাপিত ‘চুয়েট শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর’ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এ সময় গণভবন প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানটি গণভবন, আইসিটি মন্ত্রণালয় ও চুয়েট তিন প্রান্ত থেকে একযোগে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে সম্প্রচারিত হয়।


উদ্বোধন অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রান্ত থেকে চট্টগ্রাম-৬ সংসদীয় আসনের এমপি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকসহ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, চুয়েটের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থী এবং শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটররের উপকারভোগী বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সফল উদ্যোক্তা তৈরি, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে গবেষণা ও উদ্ভাবনী কার্যক্রমকে উৎসাহিত করা এবং ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া কোলাবোরেশনকে আরও সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের সুযোগ আরও অবারিত করার মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের আয় প্রত্যাশিত মাত্রা অর্জনের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) সর্বপ্রথম শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর স্থাপন করা হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীনে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে প্রায় ১১৭.৭ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হয়।


এমপিওভুক্তির মাপকাটির প্রসঙ্গ তুলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এগুলোকে সহযোগিতা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় আমরা প্রত্যেকটা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান, শিক্ষার্থীদের সংখ্যা, পরীক্ষার রেজাল্ট অর্থ্যাৎ পরীক্ষার অংশগ্রহণ বা তার ফলাফলটা এই সব কিছু আগে বিবেচনা করা হয়। মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাপারে আমরা বিশেষ পদক্ষেপ নিই। হয়ত সব সরকারিকরণ না করেও সেখানকার শিক্ষক কর্মচারীরা যেন সরকারের কাছ থেকে বেতন পায়। সেই ব্যবস্থাটা নিই। যে কারণে এ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘এরইমধ্যে ২৬ হাজার ৪৪৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করেছি। ২০১৯ আমাদের সরকার আরও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের আওতামুক্ত ১৬৫১টি এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের আওতামুক্ত ৯৮৮টি অর্থ্যাৎ সর্বমোট ২০৬৩৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমরা এমপিওভুক্তি করেছিলাম।’


‘এই বছর ২০২২ সালে আজকে ঘোষণা দিচ্ছি, এরপর আমাদের শিক্ষামন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নেবে।’

প্রধানমন্ত্রী জানান, ২০৫১টি এমপিওভুক্তির তালিকায় রয়েছে নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৬৬৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১১২২টি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১৩৬টি উচচ মাধ্যমিক কলেজ ১০৯টি, ডিগ্রি কলেজ ১৮টি।


শেখ হাসিনা বলেন, ‘এমপিওভুক্তির পাশাপাশি প্রত্যেকটা উপজেলায় একটা করে কলেজ, একটা করে স্কুল এরইমধ্যে সরকারি করণ করে ফেলেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘কারিগরি ও মাদ্রাসা শিকষা বিভাগের আওতায় ৬৬৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করার ঘোষণা দিচ্ছি। এর মধ্যে রয়েছে এসএসসি ভোকেশনাল, অথবা দাখিল ভোকেশনাল ৯৭টি। এসএসসি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড টেকনোলজি ২০০টি ডিপ্লোমা ইন এগ্রিকালচার দুইটি। দাখিল মাদরাসা ২৬৪টি আলিম মাদ্রাসা ৮৫টি ফাজিল মাদরাসা ছয়টি, কামিল মাদরাসা ১১টি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয় উভয় বিভাগের আওতায় দুই হাজার ৭১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করবে। সেই ঘোষণা আমি দিচ্ছি। আমাদের শিক্ষামন্ত্রী এখানে উপস্থিত আছেন, কাজেই শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবে। আমি জানি আজকেই ইচ্ছা করলে ঘোষণাটা করে দিতে পারেন তাহলে দেশের মানুষের জন্য এটি খুবই উপকার হবে।’

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি