1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১৬ অপরাহ্ন

মানদণ্ড থেকেও সেবা এগিয়ে— দাবি গ্রামীণফোনের

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৯ জুন, ২০২২

ঢাকা: গ্রাহকদের মানসম্মত সেবা দেওয়ার অভিযোগে সিম বিক্রিতে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি’র চিঠিকে ‘অপ্রত্যাশিত’ বলে অভিহিত করেছে গ্রামীণফোন। দেশের শীর্ষ এই মোবাইল অপারেটরের দাবি, তাদের গ্রাহকসেবা সংশ্লিষ্ট মানদণ্ড থেকেও এগিয়ে রয়েছে।


বুধবার (২৯ জুন) রাতে গ্রামীণফোন থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গ্রামীণফোনের হেড অব কমিউনিকেশন্স খায়রুল বাশার এ বিবৃতি পাঠিয়েছেন গণমাধ্যমে।

বিবৃতিতে গ্রামীণফোন বলছে, গ্রামীণফোন বিটিআরসি ও আন্তর্জাতিক সংস্থা আইটিইউয়ের সেবার মানদণ্ড অনুসরণ করার পাশাপাশি সেবাদানের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মানদণ্ড থেকেও এগিয়ে আছে। ধারাবাহিকভাবে নেটওয়ার্ক ও সেবার মানোন্নয়নে প্রতিষ্ঠানটি বিটিআরসি’র সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে। নেটওয়ার্ক আধুনিকীকরণেও বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত নিলামে গ্রামীণফোন সর্বোচ্চ অনুমোদিত তরঙ্গ অধিগ্রহণ করেছে উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ অবস্থায় বিটিআরসি’র সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞার চিঠি অপ্রত্যাশিত। এই চিঠি ও নিষেধাজ্ঞা নিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ধারণ করতে গ্রামীণফোন পরিস্থিতি মূল্যায়ন করছে।


গঠনমূলক আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হতে পারে উল্লেখ করে গ্রামীণফোন বলেছে, আমরা মনে করি— আমাদের সম্ভাব্য গ্রাহকদের স্বার্থে নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিটিআরসি) সঙ্গে গঠনমূলক আলোচনাই হবে এ সমস্যা সমাধানের সর্বোত্তম উপায়।

এর আগে, গ্রাহকদের মানসম্মত সেবা না দেওয়ার অভিযোগে বুধবার দুপুরে গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি অনুমোদন করে বিটিআরসি। পরে এ বিষয়ে নির্দেশনা পাঠানো হয় গ্রামীণফোনকে।


বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, গ্রামীণফোন তাদের কোয়ালিটি অব সার্ভিস উন্নতি না করা পর্যন্ত তাদের নতুন সিম বিক্রি বন্ধ থাকবে।

টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি’র সবশেষ মে মাসের তথ্য বলছে, দেশে মোট মোবাইল ফোন গ্রাহকের সংখ্যা ১৮ কোটি ৪২ লাখ ৩০ হাজার। এর মধ্যে ৮ কোটি ৪৯ লাখ ৫০ হাজার গ্রাহক নিয়ে শীর্ষে রয়েছে গ্রামীণফোন।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি