1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন

মুশফিকের কাঁধে চড়ে বাংলাদেশের ২৪৬

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক

ম্যাচ জিতলে শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম সিরিজ জয়, এমন সমীকরণে মাঠে নেমে বেশ শক্ত স্কোর পেয়েছে বাংলাদেশ। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ২৪৬ রান তুলেছেন স্বাগতিকরা। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ২৫৭ রানের সংগ্রহ গড়ে ৩৩ রানে ম্যাচ জিতেছিল বাংলাদেশ। সে হিসেবে আজ সিরিজ নিশ্চিতের ভালো সুযোগই আছে তামিম ইকবালের দলের।

মঙ্গলবার (২৫ মে) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের আজকের ইনিংসটা অনেকটা হলিউডের নায়ক নির্ভর কোনো সিনেমার মতো! এক্ষেত্রে নায়কের ভূমিকায় মুশফিকুর রহিম। দলের ধস ঠেকিয়েছেন মুশফিক, পরে দলকে চ্যালেঞ্জিং একটা স্কোর দাঁড় করানোর দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। মাঝে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরিটাও পেয়ে গেছেন অভিজ্ঞ ব্যাটার।

টস জিতে প্রথম ওয়ানডের মতো আজও ব্যাটিং নিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে অধিনায়ক শুরুতে ঝড়ের আভাস দিলেও টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। প্রথম ওভারে ১৪ রান তোলা তামিম দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে এলবিডব্লিউ হয়েছেন। চার বল পর সাকিব আল হাসনও যখন এলবিডব্লিউ হলেন তারপর ক্রিকে আসেন মুশফিক।

সেই যে হাল ধরলেন, বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জিং স্কোর নিশ্চিত হয়েছেন তবেই আউট হয়েছেন মুশি। তরুণ ওপেনার লিটন দাস আজও ব্যর্থ। ইনিংসের শুরুতে অনেক বল খেলে সেট হলেও পড়ে উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন ৪২ বলে ২৫ রান করে। লাকসাম সান্দাকানের ওয়াইড লাইনের বল তাড়া করতে গিয়ে ক্যাচ দেন পয়েন্টে।

মুশফিকের কাঁধে চড়ে বাংলাদেশের ২৪৬

এরপর প্রায় দুই বছর পর দলে সুযোগ পাওয়া মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতও মাত্র ১০ রান করে ফিরেছেন ওয়াইড বল তাড়া করতে গিয়ে। তারপর অনেক অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাছ থেকে বলার মতো একটা সঙ্গ পেয়েছেন মুশফিক। দুজনের পঞ্চম উইকেট জুটিটা ছিল ৮৭ রানের। এই জুটিতেই মূলত ধস ঠেকিয়েছে বাংলাদেশ। শ্রীলংকার অধিনায়ক এবং উইকেটরক্ষক কুলশ পেরেরার দুর্দান্ত কিপিংয়ের বলি হয়ে ফেরার আগে ৫৮ বল খেলে ১টি চর ২টি ছক্কায় ৪১ রান করেন রিয়াদ।

২৩ রানের ব্যবধানে মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন ধ্রুব (১০) এবং মেহেদি হাসান মিরাজ যখন ফিরলেন বাংলাদেশের স্কোর তখন ১৮৪/৭। ব্যাট করার মতো ছিলেন তখন কেবল মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। সেই সাইফকে নিয়েই বাংলাদেশকে টেনেছেন মুশি।

সাইফ উইকেটের একপ্রান্ত থেকে স্ট্রাইক বদলের চেষ্টা করেছেন। অন্যপ্রান্তে মুশফিকের পুরো ইনিংসটিই ছিল সহজাত। বাউন্ডারির দিকে না ঝুঁকে সিঙ্গেল-ডাবলস দিয়েই রানের চাকা সচল রেখেছিলেন। সেঞ্চুরি হওয়ার পর হাত খুলতে চেয়েছেন। তাতে নিজের স্ট্রাইকরেট উন্নতির সঙ্গে দলের রানও শক্ত একটা জায়গায় গিয়ে ঠেকেছে।

৪৮.১ ওভারে হাকাতে গিয়ে শেষ ব্যাটার হিসেবে মুশফিক যখন আউট হলেন তার নামের পাশে তখন ১২৫ রান। ১২৭ বল খেলে ১০টি চারের সাহায্যে এই রান করেছেন তিনি। অর্থাৎ দলের মোট রানের অর্ধেকেরও বেশি তার। সাইফউদ্দিনের সংগ্রহ ৩০ বলে ১১ রান।

শ্রীলংকার হয়ে তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন দুশমান্ত চামিরা ও লাকসাম সান্দাকান।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি