1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

‘যারা বাড়ির দিকে ছুটছেন, তাদের যেন অক্সিজেন নিয়ে দৌড়াতে না হয়’

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ মে, ২০২১

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের বিধিনিষেধ চলমান। এই বিধিনিষেধ লঙ্ঘন করে ঈদ উৎসব করতে বিভিন্ন উপায়ে ঢাকা ছাড়ছেন লাখো মানুষ। যাদের একটি বড় অংশই মেনে চলেননি স্বাস্থ্যবিধি। যে কারণে আবারও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা করছেন নীতি নির্ধারকরা। আর জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, যারা গাদাগাদি করে বাড়ির দিকে ছুটছেন, আশা করব তাদের যেন অক্সিজেন নিয়ে দৌড়াতে না হয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ মে) এসব বিষয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, ‘বিধিনিষেধ আরোপ করার কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমে এসেছিল। যেমন, শনাক্ত কম হচ্ছে, আবার মৃত্যুর সংখ্যাও কমে যাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘এটি আসলে সায়েন্সের মতো। আমরা যখন দ্বিতীয় দফায় ১৪ তারিখে বিধিনিষেধ বাড়ালাম তখন আমাদের জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, মে মাসের প্রথম সপ্তাহে করোনার সংক্রমণ কমতে থাকবে। ঠিক সেটাই হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যদিও পরবর্তী সময়ে বাস্তবতার নিরিখে দোকানপাট খুলে দিতে হলো। এমনিতেই ব্যবসায়ীরা বৈশাখের ব্যবসা করতে পারেননি, অন্যদিকে ঈদের বিষয়টি রয়েছে। বিভিন্ন কারণে এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। কিন্তু আমরা যেটা দেখতে পাচ্ছি, কিছু মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই শপিং করেছেন, মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করেছেন। আবার দেখেছি বাড়ি যাওয়ার ঢল নেমেছে। যে যেভাবে পারছেন বাড়ি যাচ্ছেন। এটা আমাদের চিন্তার বিষয়।’

ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্ট এখন দেখা যাচ্ছে। ভারতের পরিস্থিতি আমাদের মাথায় রাখতে হচ্ছে। আমাদের দেশের সংক্রমণ কমিয়েছি বিধিনিষেধের মধ্য দিয়ে। কিন্তু ঈদ উপলক্ষে যেভাবে মানুষজন মাস্ক না পরে বাড়ি গেল; আবার তারা ফিরবেনও। তাতে আমরা শঙ্কিত। আমাদের আশঙ্কা ঈদের পরে অর্থাৎ ২০ মে থেকে ২২ মে’র দিকে সংক্রমণ আবার বাড়বে। যারা গাদাগাদি করে বাড়ি যাওয়ার জন্য দৌড়েছেন, আশা করব তাদের যেন অক্সিজেন নিয়ে না দৌড়াতে হয়। আমরা সেজন্য চিন্তা করছি ১৬ মে’র পরে আরেকদফা সময় বাড়ানোর। অর্থাৎ ১৭ মে থেকে আরও সাতদিন বিধিনিষেধ অব্যাহত রাখা।

তিনি বলেন, ‘তবে আমাদের অবশ্যই মাস্ক পরাতে হবে। যারা মাস্ক পরবেন, তারা সেভ থাকবেন, যারা পরবেন না তাদের শতভাগ সংক্রমণের ঝুঁকি থাকবে। আমরা তাই কিছু পরিকল্পনা করেছি। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে গঠিত জাতীয় কারিগরি কমিটির পরামর্শ মেনেই আমরা সামনে এগোচ্ছি। আমাদের আইন সংশোধন হচ্ছে, পুলিশ ক্ষমতা পাবে। তখন পুলিশ মানুষকে ফোর্স করে বলতে পারবেন। তারা বলতে পারবেন যে, আগে মাস্ক পরেন, তারপর হাঁটেন।’

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ঈদের পরে যে বিধিনিষেধ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হচ্ছে, তাতে আপাতত নতুন কিছু যুক্ত হচ্ছে না।’ আগামী ১৬ মে’র মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হবে বলে জানান তিনি।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি