1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন

‘সব হারিয়ে একটি আদর্শই আমার শক্তি’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের সদস্যদের নির্মম হত্যকাণ্ডের কথা স্মরণ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সব হারিয়েছি। বাবা-মা, ভাই। তারপরও একটি আদর্শ নিয়েই পথ চলি। এটিই আমার শক্তি। যে স্বপ্নটা আমার বাবা দেখেছেন, ছোটবেলা থেকে যার ‍মুখে কথাগুলো শুনেছি- সেটাকেই আমার বাস্তবায়ন করতে হবে। এর বাইরে আর কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই।

রোববার (১ আগস্ট) সকালে ‘জাতীয় শোক দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ কৃষক লীগ আয়োজিত স্বেচ্ছায় রক্ত ও প্লাজমা দান কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুকন্যা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি ধানমন্ডি-৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর চত্ত্বরে যুক্ত ছিলেন।

শেখ হাসিনা ১ আগস্ট কৃষক লীগের উদ্যোগে রক্তদান কর্মসূচি কথা তুলে ধরে বলেন, ‘এক সময় আমরা সবাই রক্ত দান করতাম। তবে বয়সের ভারে এখন আর দিতে পারি না। কারণ ৫৬ বছর বয়স হয়ে গেলে আর সেই রক্ত নেয় না। ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আসার পর আমরা যখন রক্তদান কর্মসূচি শুরু করি তখন আমি প্রতিবছর রক্ত দিয়েছি।’
বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, “জাতির পিতা বলেছিলেন, ‘রক্ত যখন দিয়েছি আরও দিবো; এই দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব ইনশাল্লাহ।’ রক্ত তিনি নিজেও কিন্তু দিয়ে গেছেন। যারা আমাদের স্বাধীনতাবিরোধী ছিল বা বাঙালির বিজয় চায়নি তারাই কিন্তু তাকে হত্যা করেছে। তার রক্তের ঋণ আমাদের শোধ করতে হবে। কাজেই অন্তত এই রক্তদানের মাধ্যমে যদি একটি মুমূর্ষূ রোগীকেও বাঁচাতে পারি সেটাই হবে সব থেকে বড় কথা।”
‘রক্ত আপনি মানবকল্যাণে দান করছেন। আর এতে নিজের কোন ক্ষতি হয় না, বরং উপকার হয়’- যোগ করেন শেখ হাসিনা।

১৫ আগস্টের শাহাদাৎবরণকারীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দৃঢ়তা ব্যক্ত করে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি শুধু বাংলাদেশের মানুষের মুখে হাসি দেখতে চাই। বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন দেখতে চাই। বাংলাদেশ ক্ষুধা, দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পেয়ে উন্নত সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে গড়ে ‍উঠবে। বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে চলবে। মর্যাদা নিয়ে চলবে। সম্মানের সাথে চলবে। আমরা বিজয়ী জাতি। বিজয়ী জাতি হিসেবে বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলব- এটাই চাওয়া।’

কৃষক লীগের সভাপতি সমীর চন্দের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুরনাহার লাইলী, দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটু।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। পরে দুঃস্থ-অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য-উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন নেতারা। এ সময় স্বেচ্ছায় রক্ত ও প্লাজমা দান করেন দাতারা। পাশাপাশি ১৫ আগস্ট শহিদদের আত্মার মাগফিরাত কামরা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি