1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন

সম্পত্তির উৎসের কথা জানাতে পারেননি পি কে হালদার

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২৮ মে, ২০২২

বাংলাদেশের এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের থেকে কোটি কোটি টাকা নয়ছয় এবং বেআইনিভাবে ভারতে বিপুল পরিমাণ অর্থপাচারের দায়ে অভিযুক্ত পলাতক আসামি প্রশান্ত কুমার হালদারসহ (পি কে হালদার) ও তার পাঁচ সহযোগীকে শুক্রবার কলকাতার ব্যাঙ্কশাল স্ট্রিটের নগর দায়রা আদালতে তোলা হয়েছিল। আদালত ৭ জুন তাদের পর্যন্ত কারাগারে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

ব্যাঙ্কশাল আদালতের আইনজীবী জানান, এই আর্থিক জালিয়াতির ঘটনায় তদন্ত করতে গিয়ে অনেক তথ্য প্রমাণ তাদের হাতে এসেছে। পি কে হালদার তার বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির সম্পত্তির উৎসের কথা জানাতে পারেননি।

আইনজীবী জানিয়েছেন, ‘তদন্ত যত এগোচ্ছে, ততই নতুন নতুন সম্পত্তির হদিশ পাওয়া যাচ্ছে। এর সাথে কিছু প্রভাবশালী মানুষ জড়িত থাকতে পারেন, তবে তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম জানানো যাচ্ছে না ‘

ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তদন্তের মাধ্যমে জানতে পেরেছে, ভারতে মোট ১৩টি বাড়িসহ বিভিন্ন জায়গায় ফ্ল্যাট, বোট হাউজ এবং একাধিক জমি রয়েছে পি কে হালদারের।

এছাড়াও তার প্রতারণা চক্রের সঙ্গে ১৩টি কোম্পানি জড়িত রয়েছে বলে জানা গেছে। যারা কলকাতা ও এর আশপাশের বিভিন্ন এলাকার।

গত ১৪ মে ভারতের কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার অশোক নগরের একটি বাড়ি থেকে পি কে হালদার ও তার পাঁচ সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাকে আদালতে হাজির করলে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক। মঙ্গলবার (১৭ মে) তার বিরুদ্ধে আরও ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন কলকাতার একটি আদালত।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি