1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : nowshad Uddin : nowshad Uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

হেফাজতের বিরুদ্ধে মামলা সরকার করেনি, কিছু করার নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০

হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমীর আল্লামা আহমদ শফীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগে সংগঠনটির নেতাদের বিরুদ্ধে হওয়া মামলা সরকার করেনি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, বান্দরবান, কক্সবাজার, নায়াণয়গঞ্জ ও চাঁদপুরে ই-পাসপোর্ট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

মামলা প্রত্যাহারের দাবি প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকার হেফাজতে ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেনি, মামলা করেছে সংক্ষুব্ধ একটি পক্ষ।

তিনি বলেন, মামলা করা নাগরিক অধিকার। কেউ মনে করেছে অন্যায় হয়েছে। সংক্ষুব্ধ হয়ে তারা মামলা করেছে। যে কেউ অন্যায়ের প্রতিকার চাইতে পারে, মামলা করতে পারে। এখানে সরকারের কিছু করার নেই।

দেশজুড়ে ভাস্কর্যের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে মন্ত্রী জানান, ভাস্কর্যের নিরাপত্তা নিয়ে হাইকোর্টের একটি নির্দেশ রয়েছে এবং তা রক্ষার দায়িত্ব সবার।

তিনি বলেন, ভাস্কর্য পাহারার জন্য হাইকোর্ট থেকে নির্দেশনা এসেছে। সরকার সেই অনুযায়ী কাজ করছে। শুধু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নয়, বাঘা যতীনের ভাস্কর্যও ভাঙচুর হয়েছে। আমরা মনে করি এগুলো বাংলাদেশের কৃষ্টি, বাংলাদেশের সম্পদ। ভাস্কর্য আমাদের ইতিহাসের অংশ। এগুলো সুরক্ষার দায়িত্ব সবার। জনগণেরও এখানে দায়িত্ব রয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে

এর আগে তিনি ই-পাসপোর্ট সেবার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি চুক্তির সুবাদে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমরা শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির পরিবেশ গড়ে তুলেছি। আমাদের দেশ এগিয়ে চলেছে। বাংলাদেশ আজ তলাবিহীন ঝুড়ি নয়। বাংলাদেশ সম্ভাবনাময় দেশ। বাংলাদেশ আজ কোনো দিকে পিছিয়ে নেই। আমাদের তরুণ প্রজন্ম স্বপ্ন দেখে বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে নেয়ার জন্য।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চুক্তির কিছু কিছু বিষয় অসম্পূর্ণ রয়েছে। এ ব্যাপারে কাজ চলছে। আমরা আর এ এলাকায় রক্তপাত চাই না। দেশ অনেক এগিয়েছে, নতুন নতুন সম্ভাবনার সৃষ্টি হচ্ছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ বাংলাদেশে কোনো অংশ অন্ধকারে থাকবে প্রধানমন্ত্রী তা কখনও চিন্তা করেন না।

ই-পাসপোর্ট বিষয়ে মন্ত্রী জানান, ২০০৮ সালে শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা করেছিলেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার মধ্যে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম একটি। বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে প্রথম এবং সারা বিশ্বের মধ্যে ১১৯তম দেশ যারা ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু করেছে। এটি যেন বিশ্বমানের হয় সে লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করেছে। ই-পাসপোর্ট সারা বিশ্বে বিশ্বাসযোগ্য, নিরাপদ। এটি ইস্যু করা হবে ১০ বছরের জন্য।

ই-পাসপোর্ট পেতে যাতে হয়রানির শিকার হতে না হয় তার প্রতি নজর রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন মন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, ই-পাসপোর্টের জন্য ঘরে বসে আবেদন করা যাবে। পরবর্তীতে আঙুল ছাপ ও চোখের স্ক্যানের জন্য পাসপোর্ট কার্যালয়ে আসতে হবে। ই-পাসপোর্টের পাশাপাশি এমআরপি পাসপোর্ট এখনও ব্যবহৃত হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান পরে বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ই-পাসপোর্ট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি