1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : uddin : uddin uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
  5. sultansumon2050@gmail.com : Sultan Sumon : Sultan Sumon
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

সচল হলো সুয়েজ খাল

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৯ মার্চ, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিশরের সুয়েজ খালে আড়াআড়িভাবে আটকে থাকা কনটেইনারবাহী জাহাজ এমভি এভার গিভেনকে সরিয়ে এক সপ্তাহের মাথায় ব্যস্ততম ওই নৌ রুট সচল করা সম্ভব হয়েছে। খবর রয়টার্স।

জাহাজটি আটকে থাকায় লোহিত সাগরের সঙ্গে ভূমধ্যসাগরকে যুক্ত করা নৌ রুটে ৩০০’র বেশি জাহাজের জট তৈরি হয়।

রয়টার্স জানিয়েছে, শনিবার (২৭ মার্চ) ভরা জোয়ারের মধ্যে এমভি এভার গিভেনকে সরানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন উদ্ধারকর্মীরা। অবশেষে স্থানীয় সময় সোমবার (২৯ মার্চ) ভোররাতে সুখবর দেয় জাহাজটি সরানোর কাজে থাকা ইঞ্চকেপ শিপিং সার্ভিসেস।

এক টুইটার বার্তায় জানানো হয়, ৪০০ মিটার দীর্ঘ এবং ৫৯ মিটার প্রশস্ত খালের পাশের চরায় আটকে যাওয়া এভার গিভেনকে সফলভাবে ভাসিয়ে তোলা সম্ভব হয়েছে এবং জাহাজটি এখন নিরাপদ।

সামাজিক যোগাযগের মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে, জাহাজটির পেছনের অংশ খাল পাড়ের একদিকে উঠে এসেছে, তাতে সামনের দিকে খালের একটি অংশ উন্মুক্ত হয়েছে। এখন টাগবোট দিয়ে টেনে জাহাজটিতে খাল পার করে দিতে পারলে গত কয়েক দিনের অচলাবস্থার অবসান ঘটবে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এর আগে, দুই লাখ ২০ হাজার টন ধারণক্ষমতার এমভি এভার গিভেন তাইওয়ান থেকে পণ্য নিয়ে সুয়েজ খাল হয়ে নেদারল্যান্ডসে যাচ্ছিল। কিন্তু মঙ্গলবার খালে ঢোকার পর ভূমধ্যসাগরের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় সেটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঘুরে যায় এবং সংকীর্ণ খালে আড়াআড়ি আটক পড়ে। ফলে খালের দুই প্রান্তে পারাপারের অপেক্ষায় থাকা জাহাজের ভিড় বাড়তে থাকে। যে পরিমাণ পণ্য এখন সুয়েজের দুই পড়ে আটকে আছে, তার পরিমাণ ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি হবে বলে ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে ধারণা দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, এশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে সংক্ষিপ্ততম জলপথ হল সুয়েজ খাল। ১৯৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এই জলপথে তিনটি প্রাকৃতিক হ্রদ আছে।

সুয়েজ খাল কর্তৃপক্ষের প্রাথমিক প্রতিবেদনে বলা হয়, তীব্র বাতাসের কারণে এভার গিভেন খালের তীরের কাছে চরে আটকা পড়ে, তাছাড়া ধুলিঝড়ও তখন দৃষ্টিসীমাকে বাধাগ্রস্ত করেছিল। এ ব্যাপারে সুয়েজ খাল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জেনারেল ওসামা রাবি বলেছেন, আবহাওয়া ‘মূল কারণ ছিল না’। এক্ষেত্রে ‘কারিগরি ত্রুটি’ ছিল বলেও তার ধারণা।

জাপানের শোয়েই কিসেন-এর মালিকানাধীন তাইওয়ানের এভারগ্রিন মেরিন এভার গিভেন জাহাজটি পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে। শোয়েই কিসেনের প্রেসিডেন্ট ইউকিতো হিগাকি বলেছেন, জাহাজটির ক্ষতি হয়নি। ভেতরে পানিও প্রবেশ করেনি।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি