1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : uddin : uddin uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
  5. sultansumon2050@gmail.com : Sultan Sumon : Sultan Sumon
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১০:৩১ পূর্বাহ্ন

জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে ফেসবুকে সরব ১১ লাখের বেশি বাংলাদেশি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১

ওয়ার্ল্ড আর্থ ডে বা বিশ্ব ‘ধরিত্রী দিবস’ আজ। ১৯৭০ সাল থেকে পৃথিবীকে দূষণমুক্ত আর বসবাসের উপযোগী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে এই দিনটি। ২০২১ সালে এসে বিশ্ব পরিবেশ নিয়ে অনেক বেশি ভাবছে মানুষ। কারণ, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সারা মানুষ নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

বাংলাদেশেও জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ বান্ধব কর্মসূচি নিয়ে মানুষের আগ্রহ দেখা যাচ্ছে। গত তিন মাসে ১১ লাখের বেশি মানুষ ফেসবুকে পরিবেশ রক্ষা নিয়ে কথা বলেছেন। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদের আলোচনার প্রধান তিনটি বিষয় হচ্ছে টেকসই ও স্বাস্থ্যকর খাবার, পরিবেশ বান্ধব জীবনযাপন ও বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ। প্রতিদিনই নতুন নতুন মানুষ এই আন্দোলনে যোগ দিচ্ছেন এবং নানা ধরনের প্রতিরক্ষা মূলক কাজেও অংশ নিচ্ছেন। পরিবেশ বিষয়ক ৬ হাজার ফেসবুক গ্রুপে অন্তত ২০ লাখের বেশি বাংলাদেশি সদস্য রয়েছে।

এবারের আর্থ ডে-তে ফেসবুক তার বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহারকারীদের জলবায়ু সংকট মোকাবেলায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে। সম্প্রতি ইয়েল প্রোগ্রাম অন ক্লাইমেট কমিউনিকেশনের সঙ্গে ফেসবুকের এক যৌথ জরিপে দেখা গেছে, বিশ্বের ৩০ টি দেশের তিন-চতুর্থাংশ মানুষ বিশ্বাস করেন, জলবায়ু পরিবর্তন হচ্ছে। শুধু তাই নয়, প্রতি ১০ জনে ৭ জন মানুষ প্যারিস জলবায়ু চুক্তি সমর্থন করেন।

এশিয়া প্যাসিফিকের ইমার্জিং মার্কেটের ফেসবুক পরিচালক জোরডি ফোরনিস বলেন, ‘বাংলাদেশিরা জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে আলোচনা করছেন এবং আমাদের প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে পরিবেশ রক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে পারছেন, এতে আমি অত্যন্ত অনুপ্রাণিত বোধ করছি’। তিনি আরও বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন প্রতিরোধের তাগিদটা আমরা বুঝি। এই সংকট মোকাবেলায় আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ। আমাদের দাপ্তারিক কার্যক্রম এখন শতভাগ নবায়নযোগ্য শক্তি-নির্ভর। শুধু তাই নয়, ফেসবুক এখন বিশ্ব বাজারে নবায়নযোগ্য জ্বালানির অন্যতম বড় কর্পোরেট ক্রেতা।’

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে মানুষের অবস্থান নেওয়ার কাজটা সহজ করতে ‘গ্রিনপ্রিন্ট কনজ্যুমার গাইড’ এবং হোয়াটসঅ্যাপ এর জন্য স্টিকার প্যাক ‘স্ট্যান্ড আপ ফর আর্থ’ শীর্ষক নিয়ে আসছে ফেসবুক। এই স্টিকার প্যাকে বেশ কিছু পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ তুলে ধরা হয়েছে এবং বেশ কিছু কাজে উৎসাহিত করা হয়েছে, যেমন রিসাইক্লিং এবং বিদ্যুৎ ও পানি ব্যবহার হ্রাস। এ ছাড়া প্রাকৃতিক সৌন্দর্য নিয়ে বেশ কিছু ওয়ালপেপার ইতিমধ্যে হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া যাচ্ছে।

‘দ্য ফেসবুক গ্রিনপ্রিন্ট’ এক ধরনের ডিজিটাল গাইড। এতে ১৫ টি সহজ ধাপ আছে, যার সাহায্যে মানুষ পরিবেশ রক্ষায় ভূমিকা রাখতে পারবে। যেমন, স্থানীয় ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিয়ে বাংলাদেশের পরিবেশগত বিভিন্ন দিক সম্পর্কে জানা, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিষয়ক সংগঠনে দান করা, বা ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে নীতিশুদ্ধ কেনাকাটা করা।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি