1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : uddin : uddin uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
  5. sultansumon2050@gmail.com : Sultan Sumon : Sultan Sumon
রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ১২:৫১ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের পিচ্ছিল হাতের কল্যাণে প্রথম দিন শ্রীলঙ্কার

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক

আম্পায়ার পাল্লেকেলে টেস্টের প্রথম দিনের খেলা শেষ ঘোষণা করার পর টিভি ক্যামেরা বারবার ঘুরে যাচ্ছিল লাহিরু থিরিমান্নের দিকে। বুঝাই যাচ্ছিল ক্লান্ত, তবে ক্লান্ত চেহারায় প্রশান্তির হাসিটা চিকচিক করছিল। বাংলাদেশি বোলাররা যে সারা দিনেও আউট করতে পারলান না তাকে! থিরিমান্নের মতো দিমুথ করুনারত্নেও ভুগিয়েছেন বাংলাদেশকে। মাত্র ১টি উইকেট হারিয়ে আজ পাল্লেকেলে টেস্টের প্রথম দিন শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। এমন হতাশার দিনে মাঠ ছাড়ার সময় বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হকের হয়তো বারবার মনে পড়ছিল দিনের শুরুতে করুনারত্নেকে দুবার ‘জীবন’ দেওয়ার বিষয়টা!

ব্যক্তিগত ২৮ রানে দুইবার ক্যাচ তুলেছিলেন করুনারত্নে। তাসকিনের বলে মিড অনে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক। কিন্তু শুরুতে বলের গতি বুঝতে না পেরে জায়গামতো যেতে পারলেন না মুমিনুল হক। দুই বল পরের সুযোগটা ছিল আরও সহজ।

তাসকিনের বলেই সোজা স্লিপে দাঁড়ানো নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে ক্যাচ তুলে দেন করুনারত্নে। কিন্তু সহজ ক্যাচটা নিতে পারেননি শান্ত। আগের টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করা করুনারত্নেকে শুরুতেই ফেরাতে পারলে শ্রীলঙ্কা নিশ্চয় চাপে পড়ত। সেই চাপ পড়ে বাড়ানোর সুযোগ ছিল। দিনটাও তথন অন্য রকম হতে পারত। কিন্তু তা না হয়ে দুবার জীবন পাওয়া করুনারত্নে থিরিমান্নেকে নিয়ে ওপেনিং জুটিতে তোলেন ২০৮ রান। দুর্দান্ত শুরুর ওপর দাঁড়িয়ে রান পাহাড়ের দিকে এগুচ্ছেন স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশের পিচ্ছিল হাতের কল্যাণে প্রথম দিন শ্রীলঙ্কার

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক করুনারত্নে। দুই দলের মধ্যকার প্রথম টেস্টের উইকেট ছিল পাটা। বলা হচ্ছিল, দ্বিতীয় টেস্টের উইকেট তেমন হবে না, বোলারদের জন্যও সুবিধা থাকবে। সেই কথা যে সত্য নয় সেটা টস জিতে শ্রীলঙ্কার প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়াতেই আন্দাজ করা গিয়েছিল। খেলা শুরু হওয়ার পর সেটা আরও পরিস্কার হয়েছে।

উইকেটে ঘাস নেই। যেহেতু ঘাস নেই তৃতীয় দিন থেকে হয়তো টার্ন পাবেন স্পিনাররা। কিন্তু তার আগের সময়টাতে এই উইকেট পুরো ব্যাটিং বান্ধব। তবে এমন উইকেটেও নতুন বলে শ্রীলঙ্কানদের চমকে দিয়েছেন বাংলাদেশের পেস আক্রমন। তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ রাহি, অভিষিক্ত শরিফুল ইসলাম শুরুতে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন। শুরুর দিকে তাসকিনের বলে ক্যাচ উঠেছে তিনটি, আবু জায়েদ এলবিডব্লিউয়ের জোড়ালো আবেদন করেছেন দুবার। শরিফুলের বলই বেশ ভালোই উঠছিল। মাঝে মাধ্যেই সুযোগ তৈরি হচ্ছিল বাংলাদেশের, যদিও একটিও কাজে লাগেনি। মুমিনুল হকের বোলিং পরিবর্তনও ছিল দৃষ্টিকটু। তাসকিন-রাহি প্রথম দিকে দুর্দান্ত বোলিং করছিলেন। তবুও বারবার বোলিং পরিবর্তন করছিলেন তিনি। প্রথম দশ ওভারেই ব্যবহার করেছেন চার বোলার। দশ ওভারের মধ্যে বল তুলে দিয়েছিলেন স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজের হাতে।

অপর দিকে প্রথম ঘণ্টাটা এমন শঙ্কায় কেটে যাওয়ার পর বল পুরনো হলে শ্রীলঙ্কার দুই ওপেনার পাল্টা আক্রমণের পথ বেছে নিয়েছেন। লাঞ্চের পর প্রায় চার গড়ে রান তুলেছেন করুনারত্নে-থিরিমান্নে। অবিচক্ষণ বোলিং এবং বাজে ফিল্ডিংয়ে দ্বিতীয় সেশনে সেভাবে সুযোগই তৈরি করতে পারেনি বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পিচ্ছিল হাতের কল্যাণে প্রথম দিন শ্রীলঙ্কার

চা বিরতির পর শরিফুলকে আবারও বোলিং আক্রমণে আনেন মুমিনুল হক। তাতেই মিলে দিনের একমাত্র সাফল্য। শরিফুলের করা অফ স্ট্যাম্পোর বাইরের বলটি করুনারত্নের ব্যাটে চুমু দিয়ে উইকেটরক্ষক লিটন দাসের গ্লাভসে জমা পড়ে। তার আগেই অবশ্য দুইশ ছাড়িয়েছে শ্রীলঙ্কার ওপেনিং জুটি! বাংলাদেশের বিপক্ষে এটা শ্রীলঙ্কার প্রথম দুইশোর্ধ্ব রানের ওপেনিং জুটি।

দলীয় ২০৮ রানের মাথায় আউট হওয়ার আগে ১১৮ রান করেন করুনারত্নে। তার ১৯০ বলের ইনিংসটিতে চারের মার ১৫টি। এরপর আর উইকেট উদযাপন করতে পারেনি বাংলাদেশ। ওশাদা ফার্ন্দান্দোকে নিয়ে দিনের বাকিটা কাটিয়ে দিয়েছেন থিরিমান্নে। দিনের শেষ ওভারে ওই শরিফুলের বলেই থিরিমান্নেকে এলবিডব্লিউ আউট দিয়েছিলেন আম্পায়ার। কিন্তু লঙ্কান ওপেনার রিভিউ নিলে দেখা গেল বল স্ট্যাম্পের ওপরে ছিল। দিন শেষে ১৩১ রানে অপরাজিত থিরিমান্নে। ২৫৩ বলে ১৪টি চারের সাহায্যে এই রান করেছেন তিনি। তার সঙ্গে ৪০ রানে দিন শেষ করেছেন ফার্ন্দান্দো।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি