1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : uddin : uddin uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
  5. sultansumon2050@gmail.com : Sultan Sumon : Sultan Sumon
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

মমতাকে কটাক্ষ, সাসপেন্ড কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যটিতে ২৯৪টি আসনের মধ্যে ২০৯টি জয় পেয়েছে দলটি। এই নির্বাচনে পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ পেয়েছে বিজেপি। আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলেন বিজেপি ঘনিষ্ঠ বলিউডের কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন কঙ্গনা রানাওয়াত। পশ্চিমবাংলায় ভোটের রায় প্রকাশের আগে থেকেই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লাগাতার ‘বিষোদগার’ করছিলেন তিনি। ফলাফল ঘোষণার পর পশ্চিমবাংলায় হিংসা ছড়িয়ে পড়ার অভিযোগ তুলে একের পর এক পোস্টও করেছিলেন। এমনকী মোদিকে বাংলা ‘সামলানো’র আর্জিও জানিয়েছিলেন তিনি। তারপর পরই বিতর্কিত মন্তব্য করার দায়ে সাসপেন্ড করা হল বলিউড অভিনেত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্টটি।

মমতাকে কটাক্ষ, সাসপেন্ড কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট
কঙ্গনা রানাওয়াতের টুইটার অ্যাকাউন্ট

পশ্চিমবাংলায় ভোটের ফলপ্রকাশের দিন টুইটারে বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গাদের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে ব্যাখ্যা করেছিলেন বি-টাউনের ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’। শুধু তাই নয়, বাংলাকে কাশ্মীরের সঙ্গেও তুলনা করেন কঙ্গনা। টুইটারে কঙ্গনা লেখেন, ‘বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি…। যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা মেজরিটিতে নেই এবং তথ্য অনুযায়ী গোটা ভারতবর্ষের তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরীব আর বঞ্চিত। ভাল, আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।’ এখানেই থামেননি তিনি। ফলপ্রকাশের পর আরও বেশকিছু টুইট করেন কঙ্গনা।

মঙ্গলবার (৪ মে) সকালেই আরেকটি পোস্ট দিয়ে তাতে কঙ্গনা লেখেন, সেই তুলনা করা তার ঠিক হয়নি। তারপরই পশ্চিমবাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসার ছবি তুলে ধরার চেষ্টা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আবেদন জানান, বিষয়টি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ করতে। এমনকী মমতাকে ভোটে জিতিয়ে ক্ষমতায় আনার জন্য পশ্চিমবাংলার ভোটারদেরও তীব্র কটাক্ষ করেন কঙ্গনা। তার টুইটের ভাষা এবং ভিডিও অত্যন্ত হিংসাত্মক। যা সাম্প্রদায়িক উসকানি দিচ্ছে এবং অশান্তি ছড়াচ্ছে। এই অভিযোগেই সাসপেন্ড করা হল কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্টটি।

মমতাকে কটাক্ষ, সাসপেন্ড কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট

উল্লেখ্য, বাংলায় হিংসা আর অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টার অভিযোগে ইতিমধ্যেই কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন হাই কোর্টের আইনজীবী সুমিত চৌধুরী। বিজেপিকে সমর্থন জানাতে গিয়ে বাংলার মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরির চেষ্টা করছেন বলিউড অভিনেত্রী বলে দাবি তার। ই-মেল মারফত কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করেছেন তিনি। সব মিলিয়ে বেশ বিপাকে অভিনেত্রী।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি