1. hmgrobbani@yahoo.com : admin :
  2. noushaduddin16@gmail.com : uddin : uddin uddin
  3. news@soroborno.com : Md. Rabbani : Md. Rabbani
  4. nooruddinrasel@yahoo.com : nooruddin rasel : nooruddin rasel
  5. sultansumon2050@gmail.com : Sultan Sumon : Sultan Sumon
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮:০৮ অপরাহ্ন

ঈদ উৎসব নয়, টাইগারদের কাছে আগে দেশ

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১২ মে, ২০২১

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

একদিকে ঈদ উৎসব, অন্যদিকে ঘরের মাটিতে লাল সবুজের জার্সিতে খেলতে নামার আকাশ ছোঁয়া রোমাঞ্চ। দুইয়ের সম্মিলনে জাতীয় দলের ক্রিকেটাদের এই সময়টা পরমানন্দেই পার করার কথা ছিল। ঈদের ছুটিতে কেউ দেশের বাড়িতে যাবেন, পরিবার, স্বজন, বন্ধুদের সঙ্গে হই হুল্লোড় করে আনন্দঘন সময় কাটিয়ে দেশের জন্য খেলতে নেমে যাবেন। সময়টা স্বাভাবিক থাকলে এমনই তো হওয়ার কথা। কিন্তু অদৃশ্য এক শত্রুর কারণে সময়টা যে স্বাভাবিক নেই! করোনাভাইরাস নামক অদৃশ্য সেই শত্রুর অহর্নিশ চোখ রাঙানিতে তাদের সেই বর্ণিল আনন্দে সন্দেহাতীতভাবেই ভাটা পড়েছে।

ঈদের পরেই শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। তাই অভিভাবক সংস্থা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া সবাইকেই সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন, এড়িয়ে চলতে বলেছেন জনসমাগম।। কাজেই কারোরই ঈদ উৎসব উদযাপনের সুযোগ থাকছে না। কিন্তু তাতে বিন্দুমাত্র খেদ কারো নেই। বরং দেশের হয়ে খেলতে অভিভাবক সংস্থার সকল নির্দেশ মানতে তারা প্রস্তুত।

সারাবাংলার সঙ্গে একান্তে আলাপকালে কথাগুলো জানালেন শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে জাতীয় দলের প্রাথমিক স্কোয়াডে ডাক পাওয়া তিন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ, নাজমুল হোসেন শান্ত ও শরিফুল ইসলাম।

তাসকিন বললেন, ‘এবারের ঈদ নিয়ে কোনো পরিকল্পনা নেই। করোনাভাইরাস আছে। তাছাড়া আপনি জানেন ঈদ শেষ হলেই আমাদের খেলা আছে। আমি আসলে ভালো খেলার জন্য, সুস্থ থাকার জন্য অনেক কিছুই বিসর্জন দিয়েছি। সেজন্য তেমন কোনো পরিকল্পনা নেই। আমার কাছে সবসময় দেশ আগে। সামনে অনেক খেলা। দোয়া করবেন।’

নাজমুল হোসেন শান্ত’র কাছে দেশের হয়ে খেলাটা অনেক বেশি গর্বের।

‘সত্যি বলতে দেশের জন্য খেলা অনেক বেশি গর্বের ব্যাপার। দেশের জন্য সবকিছু করতেই প্রস্তুত। এবং এটা সবথেকে বেশি আনন্দের। হ্যাঁ, ওইভাবে বললে কিছু বাধ্যবাধকতা আছে। কিন্তু দেশের হয়ে খেলাটা আমার কাছে সবথেকে আনন্দের মনে হয় এবং এজন্য সবকিছু করতে রাজি আছি।’-বলেন শান্ত।

আর শরিফুলের মতে দেশের জন্য ঈদ উৎসব ছাড় দেওয়াই যায়।

শরিফুল বলেন, ‘ঈদের পরেই সিরিজ। আমরা যদি ঈদে ঘুরে বেড়াই বাংলাদেশের যে অবস্থা বলা যায় না যদি কিছু হয়ে যায়! তো বিসিবি আমাদের জন্য বেশ ভালো উদ্যোগ নিয়েছে। তারা বলেছেন, ঈদে যেন আমরা যত্রতত্র ঘোরাঘুরি না করি, সমাগমে না যাই এটা আমাদের জন্যই ভালো। আমার কাছে মনে হয় দেশের জন্য এতটুকু ছাড়া দেওয়ায়ই যায়।’

আগামি ১৭ মে ঈদের ছুটি শেষ করে পরদিন থেকে সিরিজের প্রস্তুতিতে নেমে পড়বে টিম বাংলাদেশ।

এদিকে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের ওয়ানডে খেলতে ১৬ মে ঢাকায় পা রাখবে অতিথি শ্রীলংকান ক্রিকেট দল। ২৩ মে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। একই ভেন্যুতে ২৫ মে দ্বিতীয় ও ২৮ মে অনুষ্ঠিত হবে তৃতীয় শেষ ওয়ানডে। প্রতিটি ম্যাচেই দিবা-রাত্রির।

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি